হায়দরাবাদ থেকে আন্তর্জাতিক মানব পাচারকারী দলের চাঁই আবদুল সালামকে গ্রেফতার করলো এনআইএ

0
NIA arrested conspirator of Visakhapattanam espionage

Last Updated on

এনআইএর দুর্দান্ত সাফল্য হায়দরাবাদে। দেহব্যবসার অপরাধ চক্রের মূল পান্ডা শনিবার ধরা পড়েছে। একজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ৪৭ বছর বয়সী জাস্টিন ওরফে আবদুল সালাম বাংলাদেশ থেকে পাচার করে মহিলাদের ভারতে নিয়ে আসতো। আবদুল আন্তর্জাতিক মানব পাচারকারী দলের প্রধান, এছাড়া দেশের অনেক জায়গায় এবং হায়দরাবাদে পতিতালয় চালাচ্ছিলো সে। জাতীয় তদন্ত সংস্থা (এনআইএ) গত বছর আইপিসির বিভিন্ন ধারার অধীনে ও অনৈতিক ট্র্যাফিকিং প্রতিরোধ আইনে এই মামলায় এফআইআর দায়ের করে ।

আরো পড়ুন :লকডাউনেও থামছে না আন্তঃরাজ্য গাঁজার কারবার,পুলিশের জালে পাচারকারী মিন্টু শেখ

এফআইআর-এ বাংলাদেশ থেকে হায়দরাবাদ সহ বিভিন্ন ভারতীয় শহরে মহিলাদের নিয়ে এসে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ দায়ের করা হয়ে। এনআইএর কর্মকর্তাদের মতে, জাস্টিন তার সহকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে একটি সুসংহত নেটওয়ার্ক গঠন করে। এই নেটওয়ার্কের মাধ্যমে তারা সকলেই বাংলাদেশের মেয়েদের প্ররোচিত করে এবং তাদের ভারতে নিয়ে এসে যৌন ব্যবসায়ের দিকে ঠেলে দেয় ।

এনআইএ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন জাস্টিনের আগে তিনজন বাংলাদেশী নাগরিক মোহাম্মদ ইউসুফ খান, বিথী বেগম ও সোজিব শাইক এবং ভারতীয় নাগরিক রুহুল আমিন দালি সহ গ্যাংয়ের সমস্ত সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। চলতি বছরের মার্চ মাসে এই চারজনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশীটও দাখিল করা হয়েছে ।

আরো পড়ুন :সিবিআইএর হাতে গ্রেফতার বিসিসিএল আধিকারিক, ঘুষ নিতে গিয়ে হাতেনাতে পাকড়াও

এনআইএ কর্মকর্তাদের মতে, জাস্টিনকে গ্রেফতারের পর তার পৈতৃক এবং ভাড়া দেওয়া বাড়িগুলির তল্লাশি করা হয় । তল্লাশির সময় তার অপরাধ সম্পর্কিত অনেক প্রমাণ পাওয়া গেছে। এর সঙ্গে কয়েক মাস আগে বাংলাদেশ থেকে আনা বেশ কয়েকটি কাগজপত্র এবং দুই যুবতী মহিলাকেও উদ্ধার করা হয়। বিষয়টি নিয়ে আরও তদন্ত করছে এনআইএ ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here