পণের দাবিতে নববধূকে খুনের অভিযোগ স্বামী ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে

0
alleged murder of a bride due to dowry

Last Updated on

বিয়ের মাত্র তিনমাসের মধ্যেই গৃহবধূকে খুন করে দেহ ঝুলিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল স্বামী ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে। বিয়ের মাত্র তিন মাসের মধ্যেই এই ঘটনায় তীব্র উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে হাওড়ার নিশ্চিন্দপুরে। গ্রেফতার করা হয়েছে গৃহবধূর স্বামীকে ।

আরো পড়ুন :শরজিল তেরে স্বপ্নেকো হাম মনজিল তাক পৌছায়েঙ্গে স্লোগান তোলা উর্বশী ও ৫০জনের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহীর মামলা রুজু

পণের দাবিতেই এই ঘটনা বলে অভিযোগ তুলেছেন মৃতার পরিবার। এই ঘটনায় মেয়ের বাড়ির লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে গৃহবধূর স্বামী কার্ত্তিক সর্দারকে গ্রেফতার করেছে নিশ্চিন্দা থানার পুলিশ ।

জানা গেছে, গত ১৯ নভেম্বর নিশ্চিন্দা থানার আনন্দনগর সর্দার পাড়ার বাসিন্দা কার্তিক সর্দারের সঙ্গে বিয়ে হয় হাওড়ার জগাছা রামরাজাতলার জিআইপি কলোনির লিপি ঘোষের ।

অভিযোগ, বিয়েতে পণ বাবদ সোনার গহনা ও যৌতুক দেওয়া হলেও বিয়ের পর থেকেই নগদ আরও এক লক্ষ টাকা পণের জন্য নিয়মিত অত্যাচার চলত নববধূর উপর ।

আরো পড়ুন :বয়স্ক কনস্টেবলের হাত ছাড়িয়ে আসানসোল আদালত চত্বর থেকে গায়েব দাগী আসামী মহঃ শাহাবুদ্দিন

তা না দিতে পারাতেই ওই বধূকে খুন করে সিলিং পাখায় দেহ ঝুলিয়ে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ জানিয়েছে মৃতার পরিবারের । পুলিশ ঝুলন্ত অবস্থায় দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠায়। ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here